For a better experience please change your browser to CHROME, FIREFOX, OPERA or Internet Explorer.

স্যার উপেন্দ্রনাথ ব্রহ্মচারী

স্যার উপেন্দ্রনাথ ব্রহ্মচারী (১৮৭৩-১৯৪৬) : স্যার উপেন্দ্রনাথ ব্রহ্মচারীর জন্ম জামালপুরে। ইস্টার্ন রেলওয়ে বয়েজ হাইস্কুল থেকে তিনি তার প্রাথমিক শিক্ষাজীবন শেষ করেন। এরপর ১৮৯৩ সালে হগলি মহসিন কলেজ থেকে গণিত ও রসায়নে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন।

১৮৯৩ সালে গণিতে প্রথম শ্রেণির অনার্সসহ বি এ, ১৮৯৪-এ স্নাতকোত্তর রসায়নে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম হন। ১৮৯৮ সালে মেডিসিন ও সার্জারিতে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম হয়ে গুডিভ ও ম্যাকলাউড স্বর্ণপদকে সম্মানিত হন। ম্যালেরিয়া, ব্যাক ওয়াটার ফিভার প্রভৃতি বিভিন্ন ক্রান্তীয় ব্যাধি নিয়ে মৌলিক গবেষণা থাকলেও কালাজ্বরের প্রতিষেধক ইউরিয়া স্টিবামাইন আবিষ্কারের জন্য তিনি চিরস্মরণীয় হয়ে আছেন। ১৯৪২ সালে নােবেল পুরস্কারের জন্য মনানীত হলেও প্রশাসনিক জটিলতার জন্য এই বিরল সম্মান তার পাওয়া হয়ে ওঠেনি।

১৯০৫ থেকে ১৯২৩ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত তিনি ঢাকা মেডিক্যাল স্কুলে প্যাথলজি ও মেটিরিয়া মেডিকার শিক্ষক ছিলেন। আই. এম. এস.না হয়েও ১৯২৩ খ্রিস্টাব্দে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অতিরিক্ত চিকিৎসক হিসেবে নিযুক্ত হন। ১৯২৭ খ্রিস্টাব্দে সরকারি কাজ থেকে অবসর নিয়ে কারমাইকেল মেডিক্যাল কলেজে শিক্ষকতা করেন। তার চিকিৎসা বিজ্ঞান সম্পর্কে লিখিত বইগুলির মধ্যে রয়েছে Treatise of Kalaazar’। তিনি ইংল্যান্ডের রয়্যাল সােসাইটি অফ মেডিসিন-এর সভ্য ছিলেন। তিনি ইন্দোরে ভারতীয় বিজ্ঞান কংগ্রেসের সভাপতির পদ অলংকৃত করেন। ১৯৩৪-এ নাইট উপাধি পান। ব্রহ্মচারী রিসার্চ ইনস্টিটিউট স্থাপন তাঁর জীবনের অনন্য কীর্তি। দেশি ওষুধ প্রস্তুতিতে তার অবদান অবিস্মরণীয়।

সোর্স – পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ (বাংলা ভাষা ও শিল্প সাহিত্য সংস্কৃতির ইতিহাস

 

leave your comment

Categories

Top